Breaking News
recent

প্রেমিকের যে কথা গুলো শুনতে ছেলেরা একদম পছন্দ করেনা

মেয়েরা একটু বেশিই কথা বলে থাকেন তা সকলেরই জানা। এই একটু বেশি কথা বলার অভ্যাস বাদেও মেয়েদের আরও কিছু অভ্যাস রয়েছে যেমন অযথা চিন্তা করা, একটু বেশি সন্দেহ করা ইত্যাদি। এবং এই অভ্যাসবশত তারা এমন কিছু কাজ ও কথা বলে ফেলেন যা ছেলেদের একদমই পছন্দ নয়। মেয়েরা এই কথা এবং প্রশ্নগুলোকে নিরীহ ভেবেই বলে থাকেন। কিন্তু এই কথাগুলো সম্পর্কে খারাপ প্রভাব ফেলার জন্য যথেষ্ট।
image

১) আমার প্রাক্তন প্রেমিক ঠিক এই কাজটিই করতো!
অনেক সময় মনে হতেই পারে যে আপনার পুরোনো প্রেমিক যা করতেন তা আপনার বর্তমানের ভালোবাসার মানুষটি করেন। কিন্তু তাই বলে তা ভুলেও বলতে যাবেন না। এই কথাতে ছেলেরা মনে করেন আপনি এখনো পুরোনো প্রেমকে ভুলতে পারেন নি। এতে করে সম্পর্কে সমস্যা শুরু হয়ে যায়।
২) ওই মেয়েটা কি আমার চাইতে সুন্দর?
ছেলেরা একেবারে বিপদে না পড়লে নিজের প্রেমিকাকে আরেকটি মেয়ের সাথে তুলনা করতে যান না। এবং এই ব্যাপারটি পছন্দও করেন না। তাই নিজেকে আরেকজনের সাথে তুলনা করার কথা প্রেমিককে একেবারেই করতে বলবেন না।
৩) তুমি তোমার মায়ের আঁচল ধরেই ঘোরো!
ছেলেরা একটু মা ঘেঁষা হয়েই থাকে। এটি খারাপ কিছুই নয়। বরং এটি বেশ ভালো একটি গুণ। আপনি যদি তাকে সব সময় বলতে থাকেন, ‘তুমি তো মাম্মা’স বয়’ বা ‘সারাক্ষণ মায়ের আঁচলের নিচে থাকো’ তাহলে আপনার প্রেমিক তা একেবারেও পছন্দ করবেন না।
৪) আমাকে কি মোটা দেখাচ্ছে?
এই প্রশ্নটি ছেলেদের মনে অনেক বেশি বিরক্তির সৃষ্টি করে। আপনাকে যেরকমই লাগুক না কেন তিনি আপনাকে ভালোবাসেন। তার কাছে এগুলো কোনো ব্যাপার নয়। আপনি যখন তাকে এই প্রশ্ন করবেন তখন যা বলবে তা অবশ্যই আপনাকে খুশি করার জন্য এবং তা আপনি জানেন। সেকারণেই ছেলেরা বেশ বিরক্তবোধ করে থাকেন।
৫) তোমার বন্ধুরা একদমই ভালো না
মেয়েদের তুলনায় ছেলেদের বন্ধুত্ব একটু বেশিই গভীর হয়ে থাকে। কারণ ছেলেরা দিনের অনেকটা সময় বন্ধুদের সাথে কাটায়। তারা নিজের বন্ধুদের অনেক বেশি পছন্দ করেন বলেই এই কাজটি করেন। আপনি যদি কোনো উপযুক্ত কারণ না থাকা সত্ত্বেও তার বন্ধুদের পছন্দ না করেন তবে এতে আপনার প্রেমিক কিছুটা তো মনঃক্ষুণ্ণ হবেনই।
৬) তুমি সবসময় এমনই করো
ছেলেরা সব কথা মনে করে রাখেন না বা আগের ঝগড়ার কথা মনে করে বসে থাকতেও পারেন না। তাই যখন আপনি বলতে থাকেন তুমি আগেও এমন করেছিলে, তুমি সবসময়ই এমন করো তখন তারা একটু বিরক্ত হয়ে যান।
MD. Rasel Rana

MD. Rasel Rana

Blogger দ্বারা পরিচালিত.