Breaking News
recent

ছেলেদের যে আচরণ মেয়েদের কাছে খারাপ লাগে

ভালোবাসার সম্পর্ক অনেক বেশিই নমনীয় হয়ে থাকে। একপক্ষের সামান্য একটু ভিন্ন আচরণেই অন্যের মনে বসে যায় গভীর দাগ। কিছু ব্যাপার রয়েছে যা হয়তো একজনের কাছে খুব বড় কোনো ব্যাপার না হলেও অন্যের কাছে তা বেশ বড় ধরণের কিছু। আর এখানেই হয় সমস্যা।

image
valobashar tips, valobashar golpo, valobashar kotha
বিশেষ করে প্রেমিকারা প্রেমিকের কিছু বিরক্তিকর আচরণের কারণে বিরক্ত থাকেন যা প্রেমিকেরা একেবারেই বুঝতে পারেন না। এই সকল বিরক্তিকর আচরনের কারণে হয়তো মেয়েটি দূরে সরে যাচ্ছেন প্রতিনিয়ত, সৃষ্টি হচ্ছে দুজনের মাঝে দূরত্ব।
১) সব কিছু ভুলে যাওয়া
ছেলেদের ভুলোমনা আচরণ মেয়েদের কাছে অনেক বেশি বিরক্তিকর। ছেলেরা ভাবেন কবে তাদের প্রেমের সূচনা হয়েছিল তা মনে রাখা খুবই অযথা একটি কাজ। কিন্তু তারা বুঝতেও পারেন না এই ছোটোখাটো ব্যাপারটি মেয়েদের কাছে অনেক বড়।
২) কারণে অকারণে মিথ্যে বলা
যেখানে মিথ্যে বলার হয়তো কোনো প্রয়োজনই নেই সেখানেও অনেক ছেলে মিথ্যে বলে বসে থাকেন। হয়তো ছেলেটি টেরও পান না প্রেমিকা ঠিকই তার মিথ্যেটা ধরে ফেলেছেন। কিন্তু এতে তো প্রেমিকার মনে বিরক্তির সৃষ্টি হবেই।
৩) অযথা অজুহাত দেয়া
ছেলেরা নিজেদের ভুলে যাওয়া রোগটি ঢাকতে যে জিনিসের আশ্রয় নেন তা হলো অযথা অজুহাত। মিথ্যে অজুহাত দিয়ে পার পেয়ে যেতে চান ছেলেরা। কিন্তু প্রেমিকা ঠিকই বুঝে ফেলতে পারেন তার প্রেমিকের মন। আর তাই তার কাছে সত্যিটা বললেই হয়তো বিরক্তির উদ্রেকটা কমিয়ে আনা যায়।
৪) সময় দেয়া নিয়ে ঝগড়া
প্রেমিকারা অনেক সময়ই প্রেমিকের কাছ থেকে সময় পান না বলে অভিযোগ করেন। এই বিষয়টির কারণে অনেক সময় ব্রেকআপ পর্যন্ত গড়ায় সম্পর্ক। এবং প্রেমিকা প্রাপ্য সময়টুকু প্রেমিকের কাছ থেকে পান না বলেই তিনি বেশ বিরক্ত থাকেন প্রেমিকের ওপর।
৫) অতিরিক্ত অধিকার খাটানো
সম্পর্কে জড়ানোর পর প্রেমিকেরা ভাবেন অনেকটা অধিকার হয়ে গিয়েছে তার প্রেমিকার ওপরে। সেকারণেই কিছু ন্যায়-অন্যায় কাজে জোরাজুরি শুরু করে দেন তারা। অধিকার খাটানোর ব্যাপারেও কিছুটা সীমা থাকা প্রয়োজন। নতুবা এটি শুধুমাত্র প্রেমিকার মনে বিরক্তির সৃষ্টিই করবে।
৬) সৌন্দর্য ও রুচি নিয়ে খোঁটা দেয়া
মেয়েরা সব সময় চান তার প্রেমিক তার রূপের প্রশংসা করুক। কিন্তু যদি প্রেমিক সব সময় তার চাল চলন, রুচি ও সৌন্দর্য নিয়ে কথা শোনাতে থাকেন তবে প্রেমিকা সে সম্পর্কে না থাকাই শ্রেয় মনে করেন।
৭) দেরি করলে কথা শোনানো
মেয়েরা একটু দেরি করেই থাকেন। হয়তো ৫-১০ মিনিটই দেরি হয়েছে কিন্তু এতে করে প্রেমিক যদি সব সময় অনেক বেশি কথা শোনাতে থাকেন তবে তা প্রেমিকার মনে বিরক্তির সৃষ্টি তো করবেই, ‘৫ মিনিট অপেক্ষা করতে এতো সমস্যা’।
৮) অন্য মেয়ের প্রশংসা
মেয়েরা নিজের প্রেমিক/স্বামী কারো কাছ থেকেই অন্য একজন মেয়ের প্রশংসা একেবারেই সহ্য করতে পারেন না। আপনার সামনে হয়তো কিছু বলবেন না। কিন্তু মনে মনে ঠিকই বিরক্ত হবেন।
৯) কারণে অকারণে সন্দেহ
সন্দেহপ্রবণ প্রেমিক মেয়েরা একেবারেই পছন্দ করেন না। আর সন্দেহের কারণ যদি সত্যিকার অর্থেই ভিত্তিহীন হয় তাহলে তো কথাই নেই। সম্পর্ক ভেঙে দেয়ার জন্য যথেষ্ট এই কারণ।
১০) চুপ করে থাকা
রেগে গেলে মেয়েরা একটু কথা বেশিই বলেন এবং চান প্রেমিক তার কথা উত্তর দিন। কিন্তু বেশীরভাগ ছেলে তা না করে চুপ করে বসে থাকেন। আপনি যদি প্রেমিকার রাগ থামাতেই চান তবে দয়া করে একটু মিষ্টি করে কথা বলুন, চুপ করে থাকবেন না।
MD. Rasel Rana

MD. Rasel Rana

Blogger দ্বারা পরিচালিত.